1. dailyamarkothabd@gmail.com : admin :
  2. hmhabibullah2000@gmail.com : Habib :
  3. sabbirmamun402@gmail.com : Sabbir :
মজলুম নির্যাতিত ফিলিস্তিনি ভাই-বোনদের জন্য সাহায্যের আবেদন - দৈনিক আমার কথা
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

মজলুম নির্যাতিত ফিলিস্তিনি ভাই-বোনদের জন্য সাহায্যের আবেদন

আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ২২ মে, ২০২৪

ইসলাম সব সময় ভ্রাতৃত্বের শিক্ষা দেয়। অসহায় নির্যাতিত মানুষের সেবায় এগিয়ে আসা ইসলামে অন্যতম ইবাদত। আল্লাহ যাকে অর্থ-সম্পদ দিয়েছেন তিনি সে সম্পদ থেকে নির্যাতিত মজলুম মানুষকে সাহায্য করলে তাতে আল্লাহতায়ালা খুশি হন।

‘রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেন, ‘নিশ্চয়ই আল্লাহ তার প্রতি দয়া করেন, যে তার বান্দাদের প্রতি দয়া করে।’ (বোখারি, হাদিস : ১৭৩২)

মহানবী ﷺ আরও বলেন, ‘সব মুমিন দেহের মতো। যখন তার চোখে যন্ত্রণা হয়, তখন তার পুরো শরীরই তা অনুভব করে। যদি তার মাথাব্যথা হয়, তাতে তার পুরো শরীরই বিচলিত হয়ে পড়ে।’ (মুসলিম, হাদিস : ২৫৮৬)

এবং আল্লাহতায়ালা কুরআনে এরশাদ করেন, ‘মুমিনরা পরস্পর ভাই ভাই।’ (সূরা হুজরাত, আয়াত : ১০)

মজলুম নির্যাতিত আহত বিপদের সম্মুখীন হলে অপর ভাই তার সাহায্যে এগিয়ে আসবে এটা মুমিনদের কর্তব্য। তাছাড়া দুনিয়াতে কোনো মানুষের পক্ষে একাকী বাস করা সম্ভব নয়। বিভিন্ন প্রয়োজনে একে অপরের সাহায্য ছাড়া মানুষ চলতে পারে না। কোনো মানুষ যখন কোনো বিপদের সম্মুখীন হয় নির্যাতিত হয়, তখন সে সবচেয়ে বেশি অসহায়ত্ব অনুভব করে। ওই সময় সে আন্তরিকভাবে অন্যের সাহায্য প্রত্যাশা করে। মুমিন হিসেবে আমাদের কর্তব্য এমন অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানো।

‘ রাসুলুল্লাহ ﷺ বলেন, যে ব্যক্তি দুনিয়ায় অপরের একটি প্রয়োজন মিটিয়ে দেবে, পরকালে আল্লাহ তার ১০০ প্রয়োজন পূরণ করে দেবেন এবং বান্দার দুঃখ-দুর্দশায় কেউ সহযোগিতার হাত বাড়ালে আল্লাহ তার প্রতি করুণার দৃষ্টি দেন।’ (মুসলিম, হাদিস : ২৫৬৬)

মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব। আজ পৃথিবীতে সেই মানুষেরই একটা অংশ ফিলিস্তিনি নির্যাতিত মজলুম ভাই-বোনেরা। তারা আমাদের অবিচ্ছেদ্য অংশ। তাদের দুর্বল ও অসহায় এই সময়ে সাহায্য-সহযোগিতা করা মুসলিম হিসাবে আমাদের অন্যতম কর্তব্য। বর্তমানে ইহুদীদের নির্যাতনে অতিষ্ঠ হয়ে প্রাণ রক্ষার্থে মিশরে অবস্থান নিয়েছে ফিলি_স্তিনের অসংখ্য পরিবার। তাদের একটি পরিবারের দৈনিক খাবারের জন্য ২৫০ পাউন্ড প্রয়োজন,যা টাকায় কনভার্ট করলে মাত্র ৬৭০ টাকা। তাদের খাওয়া-দাওয়ার ব্যবস্থা করতে নিরন্তর চেষ্টা করে যাচ্ছে, বিশ্বের ঐতিহাসিক বিদ্যাপীঠ আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা।

প্রিয় বাংলাদেশের ভাই- বোনেরা, হৃদয় কাঁদলে এগিয়ে আসেন বাড়িয়ে দিন সাহায্যের হাত। যুদ্ধে বিদ্ধস্ত সেই পরিবার গুলোর জন্য। যাদের ৩৬০০০ সন্তান কে শহীদ করা হয়েছে। সেই পরিবার গুলোর যারা একবেলা খাবারের জন্য আসমানের দিকে চেয়ে থাকে।সেই শিশুদের জন্য যাদের মাতৃভূমি কেঁড়ে নেয়া হয়েছে।

সাহায্য করতে যোগাযোগ করুন :

★লেখক, জাহেদুল ইসলাম আল রাইয়ান
শিক্ষার্থী আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়
হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার +201503184718

★ মুহাম্মাদ সিফাতুল্লাহ
শিক্ষার্থী আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়
হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার +8801752786389

★ মুহাম্মদ আল-মামুন
শিক্ষার্থী আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়
হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার +20 122 873 5298

★ মুহাম্মদ মুনতাসীর সাইম
শিক্ষার্থী আল-আজহার বিশ্ববিদ্যালয়
হোয়াটসঅ্যাপ নাম্বার +20 102 242 5048

Facebook Comments Box

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর