1. dailyamarkothabd@gmail.com : admin :
  2. hmhabibullah2000@gmail.com : Habib :
  3. sabbirmamun402@gmail.com : Sabbir :
দিনাজপুর বোর্ডের চার বিদ্যালয় থেকে পাস করেনি - দৈনিক আমার কথা
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন
শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

দিনাজপুর বোর্ডের চার বিদ্যালয় থেকে পাস করেনি

মোঃ আরিফ হোসেন (বীরগঞ্জ উপজেলা প্রতিনিধি)
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৩ মে, ২০২৪

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে অধীনে এ বছর চারটি বিদ্যালয়ের কোনো শিক্ষার্থী পাশ করেনি। রোববার ফলাফল প্রকাশের পর দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক প্রফেসর মীর সাজ্জাদ আলী এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিদ্যালয়গুলো হল– দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার চৌমহনী মডেল স্কুল, গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার গোগোয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, নীলফামারী জেলার ডিমলা উপজেলার শেখ ফজিলাতুনন্নেছা মুজিব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এবং কুড়িগ্রাম জেলার নাগেশ্বরী উপজেলার পুরবা সুখাতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে একজন শিক্ষার্থীও পাস করেনি।

চৌমহনী মডেল স্কুল থেকে ৬ জন, গোগোয়া বালিকা বিদ্যালয় থেকে ১৪ জন, শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২ জন এবং পুরবাসুখাতি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ৫ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছিলো।

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে এসএসসি পরীক্ষায় এ বছর পাশের হার ৭৮ দশমিক ৪৩ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১৮ হাজার ১০৫ জন শিক্ষার্থী। এবার পাসের হারসহ জিপিএ-৫ পাওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়েছে মেয়েরা। গত বছর এই বোর্ডে পাসের হার ছিল ৭৬ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে দিনাজপুর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আব্দুস সামাদ আজাদ বলেন, ‘যে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে একজন শিক্ষার্থীও পাস করেনি সেসকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিষয়ে মন্ত্রণালয় পূর্বে যেমন ব্যবস্থা নিয়েছিলো তেমন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, এ বছর এসএসসি পরীক্ষায় ২ লাখ ৪৪৪ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ১ লাখ ৯৮ হাজার ১৮৪ জন ছাত্রছাত্রী অংশ গ্রহণ করেন। অনুপস্থিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ২ হাজার ২৬০ জন। এ বছর ১ লক্ষ ৫৫ হাজার ৪৩৫ জন ছাত্রছাত্রী পাশ করেছে। পরীক্ষায় উপস্থিত ছাত্রের সংখ্যা ছিল ১ লক্ষ ৩৬২ জন, ছাত্রীর সংখ্যা ছিল ৯৭ হাজার ৮২২ জন।

এ বছর এই বোর্ডে পাশ ও জিপিএ-৫ এর সংখ্যায় এগিয়ে ছাত্রীরা। ছাত্রীদের পাশের হার ৮১ দশমিক ০৭ শতাংশ এবং ছাত্রদের পাশের হার ৭৫ দশমিক ৮৫ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ৯ হাজার ২৪৬ জন ছাত্রী আর ছাত্র জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮ হাজার ৮৫৯ জন। বহিষ্কৃত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ছিল ৬৬ জন।

এছাড়া ৭৭ টি স্কুলের শতভাগ ছাত্রছাত্রী পাশ করেছে। ২৭৮ কেন্দ্রে ২ হাজার ৭৩০টি স্কুলের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে।

Facebook Comments Box

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর