1. dailyamarkothabd@gmail.com : admin :
  2. hmhabibullah2000@gmail.com : Habib :
  3. sabbirmamun402@gmail.com : Sabbir :
যৌতুকের জন্য ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বাকে পিটিয়ে হত্যা! - দৈনিক আমার কথা
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:০৬ অপরাহ্ন
বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ১১:০৬ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ঘূর্ণিঝড় রিমাল : দুর্গত মানুষের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌছে দিলো ইউএনও রাঙ্গামাটির রাজস্থলীতে কারিতাসের উদ্যোগে সামাজিক সুরক্ষায় প্রবেশাধিকার বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত নড়াইলে সড়কের পাশ থেকে বৃদ্ধার মরাদেহ উদ্ধার। নির্মাণাধীন সীমান্ত সড়কে গাড়ি দুর্ঘটনায় আবারো ঝরলো ১টি প্রাণ; আহত ২ নদীতে ভাসছিল নবজাতকের লাশ আমেরিকার শিক্ষার্থীদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন নিখোঁজ নারীর অর্ধ গলিত লাশ মিলল শোয়ার ঘরে নকলা পৌরসভার ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত কলারোয়ায় নির্বাচনী সহিংসতায় আটক-৪ স্বপ্ন ফেরি করা বেরোবির “কমলাসুন্দরী”

যৌতুকের জন্য ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বাকে পিটিয়ে হত্যা!

Amar Kotha Desk
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ২১ এপ্রিল, ২০২৪

Tags: ,

মাদারীপুরে এবার যৌতুকের দাবিতে ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে। এইরমধ্যে অভিযুক্ত স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ।

শনিবার (২১ এপ্রিল) রাতে মাদারীপুরের সদর উপজেলার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের সুইচারভাঙ্গা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইশিতা আক্তার ওই গ্রামের এনামুল ঢালীর স্ত্রী। তাদের ১০ বছরের এক মেয়ে ও ৮ বছরের এক ছেলে রয়েছে।

স্বজনরা জানায়, মাদারীপুরের সদর উপজেলার মোস্তফাপুর ইউনিয়নের সুইচারভাঙ্গা গ্রামের মাজেদ ঢালীর ছেলের এনামুল ঢালীর (৪২) সঙ্গে ১২ বছরের আগে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় ঘটমাঝি গ্রামের আইয়ুব আলী মাতুব্বরের মেয়ে ইশিতা আক্তারের (৩৬)। বিয়ের সময় নগদ টাকাসহ মূল্যবান জিনিসপত্র দেয়া হয় এনামুলের পরিবারকে। এরপর প্রতিনিয়ত আরও যৌতুকের জন্য ইশিতার ওপর করা হয় শারীরিক নির্যাতন। এ বিষয়ে পরিবারের কাছে নালিশ দিয়েও পায়নি কোন প্রতিকার। সবশেষ শনিবার রাতে শ্বশুরবাড়ি থেকে ইশিতার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয় জেলা সদর হাসপাতালে।

স্বজনদের অভিযোগ, যৌতুক না দেয়ায় এনামুল, তার বড়ভাই টুটুল ঢালীসহ শ্বশুরবাড়ির লোকজন পিটিয়ে হত্যা করেছে ইশিতাকে। পরে বিষয়টি আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে এনামুলের পরিবার। এই ঘটনার দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন স্বজন ও এলাকাবাসী।

ইশিতার মামা আকাশ মাতুব্বর বলেন, আমার ভাগনিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে। এখন তারা বলে, আত্মহত্যা করেছে। ৮ মাসের অন্তঃসত্ত্বা কোন নারী আত্মহত্যা করতে পারে না। এর আগেও যৌতুকের জন্য ইশিতাকে নির্যাতন করতো। এই ঘটনায় এমন বিচার চাই, যাতে ভবিষ্যতে কেউ পরবর্তীতে এমন ঘটনা ঘটাতে সাহস না পায়।

মাদারীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলাউল হাসান বলেন, গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে অভিযুক্ত এনামুলকে। আর ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে নেয়া হবে আইনগত ব্যবস্থা। এছাড়া নিহতের পরিবার থেকে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেলে মামলা রেকর্ড করে বাকি অপরাধীদের ধরার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হবে।

 

Facebook Comments Box

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর