1. dailyamarkothabd@gmail.com : admin :
  2. hmhabibullah2000@gmail.com : Habib :
  3. sabbirmamun402@gmail.com : Sabbir :
খাগড়াছড়ির দীঘিনালায়    কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা  - দৈনিক আমার কথা
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১২:৪০ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সাতক্ষীরায় দুই উপজেলা বাবু ও লাল্টু জয়ী নকলা পল্লী বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে একই পরিবারের ২ জনের মৃ’ত্যু ঘূর্ণিঝড় রিমাল : দুর্গত মানুষের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌছে দিলো ইউএনও রাঙ্গামাটির রাজস্থলীতে কারিতাসের উদ্যোগে সামাজিক সুরক্ষায় প্রবেশাধিকার বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত নড়াইলে সড়কের পাশ থেকে বৃদ্ধার মরাদেহ উদ্ধার। নির্মাণাধীন সীমান্ত সড়কে গাড়ি দুর্ঘটনায় আবারো ঝরলো ১টি প্রাণ; আহত ২ নদীতে ভাসছিল নবজাতকের লাশ আমেরিকার শিক্ষার্থীদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করে ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন নিখোঁজ নারীর অর্ধ গলিত লাশ মিলল শোয়ার ঘরে নকলা পৌরসভার ২০২৪-২০২৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট সংক্রান্ত সভা অনুষ্ঠিত

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায়    কিশোরীকে ধর্ষণের পর হত্যা 

নিউজ ডেস্ক
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৬ মার্চ, ২০২৪

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার দীঘিনালা উপজেলায় ১৫ বছরের এক কিশোরীর লাশ উদ্বার করেছে পুলিশ। প্রাথমিক ভাবে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। 

 

খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার দীঘিনালা উপজেলার ১নং মেরুং ইউনিয়নে রশিকনগর খেলার মাঠে এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়দের তথ্যের ভিত্তিতে পুলিশ তিন যুবককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

 

নিহত কিশোরীর বাবা আব্দুস সোবহান একজন মাহিন্দ্রা চালক। সে রশিকনগর এলাকার স্থায়ী বাসিন্দা। আটককৃতরা হচ্ছে একই গ্রামের কালামের ছেলে ইয়াসিন (১৯), জালাল মিয়ার ছেলে সোহাগ (২০), ইয়া রউফের ছেলে শুক্কর (২৫)।

 

নিহত কিশোরী সালমা আক্তারের (১৫) মরদেহ বর্তমানে দীঘিনালা থানায় রাখা হয়েছে। সেখানে উপস্থিত কিশোরীর বাবা আব্দুস সোবহান বলেন, ‘আমার মেয়ে গ্রামের ৫০০ মিটার দূরে অনুষ্ঠিত মাহফিল শুনতে সন্ধ্যা ৭টায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। সে রাতে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। পরে মাহফিলের মাইকে ঘোষণা শুনে গ্রামের খেলার মাঠে মেয়ের লাশ পড়ে থাকতে দেখেছি।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘পারিবারিক শত্রুতা থেকে এ ঘটনা ঘটেছে। আটককৃত পরিবারের সাথে আমার দীর্ঘদিনের মামলাও চলছে। তারাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে। মাটিতে পড়ে থাকা মেয়ের গলায় কালো দাগ ছিল।’

 

থানার সামনে কান্নারত অবস্থায় কিশোরীর বাবা বলেন, ‘দেড় বছর আগে ঐ পরিবারের ভয়ে পড়াশোনা বাদ দিতে হয়েছিল আমার দুই (০২) মেয়ের, তবুও আমার মেয়ের শেষ রক্ষা হলো না। আমি এর সুষ্ঠ তদন্ত ও বিচার চাই। আর কোন বাবার বুক যেন খালি না হয়।’

 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ নুরুল হক বলেন, ‘এ বিষয়ে মামলার রুজু চলমান রয়েছে। ঘটনাটি মধ্যরাতে ঘটেছে। পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর স্থানীয় তথ্যের ভিত্তিতে তিনজন যুবককে আটক করা হয়েছে। তাদের থানায় জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আমরা ঘটনার মূল রহস্য বের করার চেষ্ঠা করছি।’

 

তিনি আরও বলেন , ‘প্রাথমিকভাবে সন্দেহ করছি যে, কিশোরীকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের পর বিস্তারিত বলা যাবে বলে তিনি জানান।

Facebook Comments Box

Please Share This Post in Your Social Media

এ জাতীয় আরও খবর